SLIDER

Navigation-Menus (Do Not Edit Here!)

পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে ব্যায়াম করা কি ভালো, না খারাপ?

পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে ব্যায়াম করতে চান না কেউই। বেশীরভাগ মানুষ মনে করেন এ সময়ে ব্যায়াম করলে ক্ষতি হবে। কেউ কেউ আবার মনে করেন এ সময়ে ব্যায়াম করলে শরীর থাকবে সুস্থ। আসলে কোনটি সত্যি? এ সময়ে কি ব্যায়াম করা উচিত, নাকি অনুচিত?

পিরিয়ডের সময়ে একবারেই ব্যায়াম করা যাবে না এটা ভুল, জানা যায় Huffington Post থেকে। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত ডাক্তার লুৎফুন্নাহার নিবিড় প্রিয়.কমকে জানান, ব্যায়াম বলতে আমরা যেটা বুঝি তেমন ভারী ব্যায়াম এ সময়ে আসলে না করাই ভালো। কারণ পিরিয়ডের সময়টা মেয়েদের রিল্যাক্স করা উচিত। তবে একেবারে শুয়ে বসেও কাটানো যাবে না। তিনি দৈনন্দিন সব কাজ করবেন। এর পাশাপাশি হালকা ব্যায়াম, সাঁতার, ইয়োগা করা যেতে পারে। তবে শরীরের ওপর চাপ ফেলে এমন ভারী কোনো কাজ করা থেকে বিরত থাকতে বলেন তিনি।
আপনার যদি এ সময়ে পেট ফেঁপে যাওয়া অথবা ক্র্যাম্প বা তলপেটে ব্যাথা হবার সমস্যা থাকে তবে হালকা কিছু ব্যায়াম আপনার উপকারেই আসবে। আপনি মাসের অন্য সময়ে যেসব ভারী ব্যায়্যাম করে থাকেন সেগুলো এ সময়ে করতে ইচ্ছেও করবে না। এর বদলে Popsugar ওয়েবসাইটে দেখে নিতে পারেন পেটের ব্যাথা কমানোর এই ইয়োগাগুলো। ব্যায়াম করার ফলে শরীরে যে এন্ডরফিন হরমোন নিঃসৃত হয় সেটা আপনার মাথাব্যাথা, ক্লান্তি কমানোর পাশপাশি মারকুটে মেজাজটাকেও সামলাতে সাহায্য করবে। সারা মাস ব্যায়াম করার অভ্যাস থাকলে এই সময়ের সাথে মিলিয়ে সারা মাসের ব্যায়ামের রুটিন ঠিক করে নিতে পারেন।
তবে ব্যায়াম আপনার পিরিয়ডের ওপর খারাপ প্রভাব রাখতে পারে বটে। বিশেষ করে আপনি যদি অতিরিক্ত ব্যায়াম করতে থাকেন যা আপনার শরীরে সহ্য না হয়। আপনার ওজন যদি আপনার উচ্চতার তুলনায় কম হয়, অর্থাৎ আপনি যদি বেশি শুকনো হয়ে থাকেন তবে সমস্যা বেশি হতে পারে। বন্ধ হয়ে যেতে পারে আপনার পিরিয়ড। তবে ব্যায়াম বন্ধ করে ভালোমত খাওয়া দাওয়া করলে আবার পিরিয়ড শুরু হতে পারে।
পিরিয়ডের সময়ে যে ধরণের ইয়োগা করা একেবারেই উচিত নয়, তা হলো মাথা নিচের দিকে দিয়ে করা কোনো ইয়োগা। কিছু কিছু ইয়োগায় মাথা নিচে দিয়ে পা ওপরের দিকে দিতে হয়। ডাক্তার নিবিড় প্রিয়.কমকে জানান, এগুলো পিরিয়ডের সময়ে করা মোটেই ঠিক নয়। এগুলোতে আপনারই কষ্ট হবে এবং এতে আপনার রক্তক্ষরণের পরিমাণ বাড়বে।

ব্যায়াম এবং অতিরিক্ত ওজনের কারণে পিরিয়ড বন্ধ হয়ে যেতে পারে কিন্তু তারমানে এই নয় যে আপনার কোনো অসুখ আছে। তবে ঘন ঘন অনিয়মতি পিরিয়ড বা পিরিয়ড মিস করলে গাইনোকলজিস্টের সাথে দেখা করুন এবং জেনে নিন আপনার কোনো সমস্যা আছে কিনা। সুস্থ থাকুন, সুন্দর থাকুন, হাসিখুশি থাকুন।

Pages