SLIDER

Navigation-Menus (Do Not Edit Here!)

জেনে নিন, শরীরের কোন অঙ্গ বেশি নোংরা

সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, শরীরের উন্মুক্ত জায়গাগুলোর মধ্যেই সবচেয়ে নোংরা অংশ রয়েছে। হার্ভার্ড স্কুল অব ডেন্টাল মেডিসিনের গবেষকেরা জানিয়েছেন, মুখের ভিতরে ৬১৫ ধরনের ব্যাকটেরিয়া বাস করতে পারে। মুখের ভিতর ও একই সঙ্গে জিভ ও গলা মানুষের শরীরের সবচেয়ে নোংরা জায়গা।


এছাড়াও দেখে নিন, এগুলো ছাড়াও শরীরের কোন কোন জায়গা সবচেয়ে বেশির নোংরা।

কান : আমাদের কানের মধ্যে অনেক ময়লা এসে জমা হয়। সেভাবে নজর না দিলেও বা খেয়াল না করলেও এটি শরীরের অন্যতম নোংরা জায়গার অন্যতম।

চোখ : আমাদের চোখের কোণগুলোতে ব্যাকটেরিয়া থাকে। চোখের পাতা ধুলো-ময়লা ও সংক্রমণ থেকে চোখকে বাঁচাত গিয়ে খুব ময়লা হয়। তাই চোখে কোনওরকম সংক্রমণ হলে হাত দিতে নেই। তাতে স্বাস্থ্যের নানাবিধ ক্ষতি হয়।

মুখের ভিতরের অংশ : হার্ভার্ড স্কুল অব ডেন্টাল মেডিসিনের গবেষকেরা জানিয়েছেন, মুখের ভিতরে ৬১৫ ধরনের ব্যাকটেরিয়া বাস করতে পারে। খাওয়ার পরে ভালো করে মুখ কুলকুচি ও দিনে দুবার দাঁত ব্রাশ করলে এর প্রকোপ কমবে।
নাক : অনেক সময়ে নাকের ভিতর শরীরের মধ্যে অন্যতম দূষিত জায়গা। ফলে নাকে হাত দেওয়ার সময়ে সবসময় পরিষ্কার রুমাল ব্যবহার করুন। ওটিকে অন্য কোনও কাজে ব্যবহার করবেন না।

হাতের নখ : হাতের নখের ভিতরে প্রচুর ময়লা থাকে। এই জায়গায় ব্যাকটেরিয়া জন্মানোর পরে বৃদ্ধি পেতে বা বেঁচে থাকতে পারে অনেক দিন। ফলে নখ বড় রাখলে নানা ধরনের সংক্রমণের সুযোগ থাকে।

মলদ্বার : মলদ্বারে হাজার ধরনের ব্যাকটেরিয়ার বাস। সঠিকভাবে এই জায়গা পরিষ্কার না রাখলে তা শরীরের ভিতরে নানা ক্ষতি করতে পারে।

নাভি : নাভির মধ্যে বহু ধরনের ব্যাকটেরিয়া থাকে যা খোলা চোখে দেখা যায় না। ফলে শরীরের অন্যতম নোংরা জায়গা এটি।

মুখমন্ডল : আয়নায় দেখার সময়ে আমাদের মুখের বাইরের অংশ পরিষ্কার দেখতে লাগলেও বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, শরীরের অন্যতম নোংরা জায়গা আমাদের মুখ। আমাদের মোবাইল থেকে বহু ব্যাকটেরিয়া মুখে এসে লাগে এবং কোথাও কেটে গেলে বা ঘা হলে তাকে আরও বাড়িয়ে তোলে

Pages